মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভবিষ্যত পরিকল্পনা

০১.

আগামী ডিসেম্বর/২০১৮ এর মধ্যে জেলার সকল ইউনিয়নে কমপক্ষে ০১ (এক)টি করে সক্রীয় যুব সংগঠন তৈরী ও তাদেরকে নিবন্ধন প্রদান করা।

০২

নিবন্ধিত সংগঠনের মাধ্যমে জুন/২০১৯ এর মধ্যে এলাকার চাহিদা ভিত্তিক প্রকল্প গ্রহনোপযোগী বিষয় নির্ধারণ, এলাকার আগ্রহী যুবদের নির্বাচন এবং মানসম্মত প্রশিক্ষণ প্রদান করা। বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণের পাশাপাশি জীবন দক্ষতা, মাদক নিয়ন্ত্রন, জঙ্গিতৎপরতা রোধ, যৌতুক ও বাল্যবিবাহও রোধে সচেতনতা সৃষ্ট্রি করা ।

প্রশিক্ষিত যুবদের আত্মকর্মসংস্থানমূলক প্রকল্প গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করা এবং সার্বিক সহায়তা করা। (যেমন; সহজশর্তে ঋণপ্রদান, উৎপাদিত পণ্য বাজারজাতকরণ ইত্যাদি ) ।

প্রকল্প গ্রহণকারী আত্মকর্মী যুবদের প্রকল্পসমূহ টেকসই করে মাঝারী ও বড়প্রকল্প স্থাপন এবং উক্ত প্রকল্পে বেকার যুবদের কর্মসংস্থান এর সুযোগ সৃষ্টি করা। এতে যুবদের শহরমুখী প্রবনতা রোধ হবে এবং স্থানীয়ভাবে উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে।

 

উপরোক্ত পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে যুবদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে এবং দেশের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। ফলে ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ, ২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘ ঘোষিত এসডিজি এবং সর্বোপরি ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে সহায়ক হবে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter